Instanotes

ছড়াপুর(কবিতা)- চন্দন নাথ

জানো কী, ছড়াপুরে ছড়ার ছড়াছড়ি
ছড়িয়ে থাকে ছড়া সবখানেই
যদিও এক বুড়ো কেবলই মাথা নাড়ে
না রে না, এখানেও সবটা নেই!

ওখানে ছড়া ভাসে আকাশে মেঘ হয়ে
ওখানে পাখি গায় ছড়ার গান
ছড়ার লুটোপুটি ধানের খেতে খেতে
ছড়ায় ভরে থাকে ফুলবাগান।

দু-কান পাতলেই দিব্যি শোনা যায়
ছড়ারই গান কল-কারখানায়
চিমনিগুলো থেকে শুধুই ধোঁয়া নয়
মেঘের মতো ছড়া ছড়িয়ে যায়।

হাওয়ায় ছড়া ভাসে, নদীতে দোলে ছড়া
ছড়ায় রোদ্দুর ছড়ার রং
ওখানে ছোট্টরা সবাই ছড়া হয়।
ছুটির ঘণ্টাটি বাজলে-ঢং!

ওখানে পথ বেয়ে ছড়ারা কেউ ছোটে
কেউ-বা হয়ে যায় ঘাসের ফুল
ছুটির দিনে কেউ একলা-একা ঘোরে
কেউ-বা হাটবারে হুলুস্থূল।

কেউ-বা সারাদিন রৌদ্রে টো-টো করে
কেউ-বা রাতচরা পাখিও হয়
জোছনা হয়ে কেউ সারাটা রাত ঝরে
তারার আলো হয় আকাশময়।

যদিও ছড়াপুরে ছড়ার ছড়াছড়ি
তবুও ওই বুড়ো বলবে রোজ,
যে ছড়া খুঁজছি তা কোথাও পাচ্ছি না
আমি তো খুঁজছিই, তোরাও খোঁজ!

Share

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *