Instanotes

মাধ্যমিক ভূগোল MCQ (Set 1) |Madhyamik Geography Short Questions Answers

বিকল্পগুলির থেকে সঠিক উত্তরটি নির্বাচন করে লেখো :

১। পর্যায়ন কথাটি প্রথম ব্যবহার করেন –

(ক) ডব্লিউ এম ডেভিস
(খ) এল সি কিং
(গ) জি কে গিলবার্ট
(ঘ) ডব্লিউ পেঙ্ক

উত্তরঃ (গ) জি কে গিলবার্ট  

২। মরুভূমির পেডিপ্লেন অঞ্চলের ক্ষয়প্রাপ্ত অবশিষ্ট পাহাড়কে বলে –

(ক) ইয়ারদাঙ
(খ) জিউগেন
(গ) মেসা
(ঘ) ইনসেলবার্জ

উত্তরঃ (ঘ) ইনসেলবার্জ  

৩। মিসিসিপি নদীর ব-দ্বীপ দেখতে –

(ক) ধনউকের মতো
(খ) ত্রিভুজের মতো
(গ) পাখির পায়ের মতো
(ঘ) করাতের দাঁতের মতো

উত্তরঃ (গ) পাখির পায়ের মতো  

৪। হিমবাহের উপর অবস্থিত সমান্তরাল ও আড়াআড়ি ফাটলকে বলে –

(ক) বার্গশ্রুন্ড
(খ) ক্রেভাস
(গ) ক্রেকস
(ঘ) এসকার

উত্তরঃ (খ) ক্রেভাস  

৫। আফ্রিকার সাহারা মরুভূমিতে প্লায়া হ্রদ পরিচিত যে নামে –

(ক)  স্যালিনা
(খ) বোলসন
(গ) ধান্দ 
(ঘ) শট্‌স

উত্তরঃ (ঘ) শট্‌স  

৬। ভারতের রাজ্য পুনর্গঠনের মূল ভিত্তি ছিল –

(ক) ভূ-প্রাকৃতিক বিভাগ
(খ) সাংস্কৃতিক পার্থক্য
(গ) ভাষা
(ঘ) সাধারণ খাদ্যাভ্যাস

উত্তরঃ (গ) ভাষা  

৭। যে প্রক্রিয়ায় বিভিন্ন প্রাকৃতিক শক্তি ভূ-পৃষ্ঠের উপর কাজ করে ভূমিরূপের পরিবর্তন ঘটায় তাকে বলে –

(ক) বহির্জাত প্রক্রিয়া
(খ) অন্তর্জাত প্রক্রিয়া
(গ) গিরিজনি আলোড়ন
(ঘ) মহিভাবক আলোড়ন

উত্তরঃ (ক) বহির্জাত প্রক্রিয়া  

৮। ক্যানিয়ন ‘I’ আকৃতি হওয়ায় প্রধান কারণ হল –

(ক) নদীর নিম্নক্ষয়
(খ) ভূমির খাড়া ঢাল
(গ) বৃষ্টিহীন শুষ্ক মরু অঞ্চল
(ঘ) নদীর পার্শ্বক্ষয়

উত্তরঃ (ক) নদীর নিম্নক্ষয়  

৯। বদ্রীনাথের কাছে অবস্থিত নীলকন্ঠ একটি –

(ক) এরিটি
(খ) পিরামিড চূড়া
(গ) সার্ক
(ঘ) ঝুলন্ত উপত্যকা

উত্তরঃ (খ) পিরামিড চূড়া  

১০। তরবারির ন্যায় বালির শৈলশিরাকে বলে –

(ক) বার্খান
(খ) অ্যাকলে
(গ) সিফ্‌
(ঘ) ধ্রিয়ান

উত্তরঃ (গ) সিফ্‌  

১১। মুম্বাই ও পুনের সংযোগকারী গিরিপথটি হল –

(ক) ভোরঘাট
(খ) পালঘাট
(গ) থলঘাট
(ঘ) পশ্চিমঘাট

উত্তরঃ (ক) ভোরঘাট  

১২। খাদারের অন্য নাম হল –

(ক) কালো মৃত্তিকা
(খ) লোহিত মৃত্তিকা
(গ) মরু মৃত্তিকা
(ঘ) নবীন পলি মৃত্তিকা

উত্তরঃ (ঘ) নবীন পলি মৃত্তিকা  

১৩। গোদাবরী নদীর উৎস হল –

(ক) ত্রিম্বকেশ্বর উচ্চভূমি
(খ) মহাবালেশ্বর
(গ) অমরকন্টক
(ঘ) ত্রিকুট পাহাড়

উত্তরঃ (ক) ত্রিম্বকেশ্বর উচ্চভূমি  

১৪। রেটুনিং পদ্ধতি প্রচলিত যে চাষের সাথে –

(ক) কার্পাস
(খ) গম
(গ) চা
(ঘ) আখ

উত্তরঃ (ঘ) আখ  

১৫।  উত্তর ভারতের ম্যানচেস্টার বলা হয় যে শহরকে –

(ক) বেনারস
(খ) পুনে
(গ) কানপুর
(ঘ) এলাহাবাদ

উত্তরঃ (গ) কানপুর  

১৬। যে প্রক্রিয়া ক্ষয় ও বহন কার্যের সামঞ্জস্য বিধান করে তা হল –

(ক) অবরোহন
(খ) পর্যায়ন
(গ) আরোহন
(ঘ) ক্ষয়ীভবন

উত্তরঃ (খ) পর্যায়ন।

১৭। মরুভূমি অঞ্চলের শুষ্ক নদীখাতকে বলে –

(ক) ওয়াদি
(খ) লোব
(গ) প্লায়া
(ঘ) বাজাদা

উত্তরঃ ক) ওয়াদি

১৮। Basket of eggs topography নামে পরিচিত ভূমিরূপটি হল

(ক) এসকার
(খ) গ্রাবরেখা
(গ) ড্রামলিন
(ঘ) বহিঃধৌত সমভূমি

উত্তরঃ (গ) ড্রামলিন

১৯।  ভারতের একটি নাতিশীতোষ্ণ ঘূর্ণবাত হল –

(ক) কালবৈশাখী
(খ) আঁধি
(গ) পশ্চিমী ঝঞ্ঝা
(ঘ) ঘূর্ণিঝড়

উত্তরঃ (গ) পশ্চিমী ঝঞ্ঝা  

২০। ভারতের সর্বাধিক নগরায়ণ দেখা যায় যে রাজ্যে –

(ক) মহারাষ্ট্র
(খ) গোয়া
(গ) কেরালা
(ঘ) তামিলনাড়ু

উত্তরঃ (ক) মহারাষ্ট্র  

২১। ‘উন্নয়নের জীবনরেখা’ বলা হয় যে পরিবহণ ব্যবস্থাকে –

(ক) রেলপথ
(খ) সড়কপথ
(গ) আকাশপথ
(ঘ) জলপথ

উত্তরঃ (ঘ) জলপথ

২২। নীলনদের ব-দ্বীপটির আকৃতি –

(ক) ধনুকাকৃতি
(খ) খাঁড়ীয়
(গ) করাতের দাঁতের মতো
(ঘ) কোনোটিই নয়

উত্তরঃ (ক) ধনুকাকৃতি  

২৩। ট্রান্স বা টেথিস হিমালয়ের সর্বোচ্চ শৃঙ্গটি হল –

(ক) সান্দাকফু
(খ) লিওপারগেল
(গ) হিমরেখা
(ঘ) গড উইন

উত্তরঃ (ঘ) গড উইন

২৪। ভারত ও আফগানিস্তানের মধ্যবর্তী সীমান্তরেখা হল –

(ক) র‍্যাডক্লিভ লাইন
(খ) ম্যাকমোহন লাইন
(গ) LOC
(ঘ) ডুরান্ড লাইন

উত্তরঃ (ঘ) ডুরান্ড লাইন  

২৫। লোকটাক হ্রদ যে রাজ্যে অবস্থিত তা হল –

(ক) ওড়িশা
(খ) রাজস্থান
(গ) তামিলনাড়ু
(ঘ) মণিপুর

উত্তরঃ (ঘ) মণিপুর

২৬। পাখির পায়ের মতো আকৃতির বদ্বীপ দেখা যায়

(ক) নীলনদের মোহনায়
(খ) সিন্ধু নদের মোহনায়
(গ) হোয়াংহো নদীর মোহনায়
(ঘ) মিসিসিপি মিসৌরি নদীর মোহনায়

উত্তরঃ (ঘ) মিসিসিপি মিসৌরি নদীর মোহনায়

২৭। ইনসেল বার্জ অধিক ক্ষয়িত হয়ে গোলাকার মস্তক টিবিতে পরিণত হলে তাকে বলে

(ক) জিউপেন
(খ) ইয়াদাং
(গ) গোর
(ঘ) বর্নহার্ড

উত্তরঃ (ঘ) বর্নহার্ড

২৮। ভারতের ক্ষুদ্রতম কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলটি হল –

(ক) চন্ডীগড়
(খ) লাক্ষাদ্বীপ
(গ) পুদুচেরী
(ঘ) দমন ও দিউ

উত্তরঃ (খ) লাক্ষাদ্বীপ  

২৯। পূর্ব হিমালয়ের একটি গিরিপথের নাম –

(ক) নাথুলা
(খ) জোজিলা
(গ) মানা
(ঘ) জেলেপলা

উত্তরঃ (ঘ) জেলেপলা 

৩০। পশ্চিম উপকূলের উপহ্রদগুলিকে বলা হয় –

(ক) তাল
(খ) ধান্দ
(গ) কয়াল
(ঘ) প্লায়া

উত্তরঃ (গ) কয়াল  

৩১। ধুঁয়াধর জলপ্রপাতটি অবস্থিত – 

(ক) নর্মদা
(খ) মহানদী
(গ) তাপ্তি
(ঘ) শোন নদীতে

উত্তরঃ (ক) নর্মদা  

৩২।  কৃষ্ণ মৃত্তিকা সৃষ্টি হয়েছে –

(ক) গ্রানাইট
(খ) নিস
(গ) ব্যাসল্ট
(ঘ) বেলেপাথর

উত্তরঃ (গ) ব্যাসল্ট  

৩৩। চন্দন গাছ জন্মায় –

(ক) শুষ্ক পর্ণমোচী
(খ) আর্দ্র পর্ণমোচী
(গ) সরলবর্গীয়
(ঘ) চিরহরিৎ অরণ্যে

উত্তরঃ (খ) আর্দ্র পর্ণমোচী

৩৪। ভারতের নবীনতম রাজ্যটি হল

(ক) ঝাড়খন্ড
(খ) উত্তরাখণ্ড
(গ) ছত্রিশগড়
(ঘ) তেলেঙ্গানা

উত্তরঃ (ঘ) তেলেঙ্গানা

৩৫। কয়াল দেখা যায় যে উপকূলে সেটি হল

(ক) মালাবার
(খ) করমন্ডল
(গ) উত্তর সরকার
(ঘ) কোঙ্কন

উত্তরঃ (ক) মালাবার

৩৬। এল নিনো দেখা যায়

(ক) আফ্রিকার পশ্চিম উপকূলে
(খ) পেরু ইকুয়েডর পশ্চিম উপকূলে
(গ) অস্ট্রেলিয়ার পশ্চিম উপকূলে
(ঘ) মাদাগাস্কার উপকূলে

উত্তরঃ (খ) পেরু ইকুয়েডর পশ্চিম উপকূলে

৩৭। রেগুর নামে পরিচিত

(ক) পলি মৃত্তিকা
(খ) কৃষ্ণ মৃত্তিকা
(গ) লোহিত মৃত্তিকা
(ঘ) ল্যাটেরাইট মৃত্তিকা

উত্তরঃ (খ) কৃষ্ণ মৃত্তিকা

৩৮। ভারতের অরণ্য গবেষণাগারটি অবস্থিত

(ক) কানপুরে
(খ) দেরাদুনে
(গ) রাঁচিতে
(ঘ) ভোপালে

উত্তরঃ (খ) দেরাদুনে।

৩৯। ভারতের জোয়ার উৎপাদনে প্রথম স্থান অধিকারী রাজ্যটি হল

(ক) মহারাষ্ট্র
(খ) উত্তর প্রদেশ
(গ) বিহার
(ঘ) পশ্চিমবঙ্গ

উত্তরঃ (ক) মহারাষ্ট্র

৪০। একটি বিশুদ্ধশ্রেণীর কাঁচামাল ভিত্তিক শিল্প হল

(ক) লৌহ ইস্পাত
(খ) বস্ত্র বয়ন
(গ) মোটরগাড়ি
(ঘ) তথ্যপ্রযুক্তি

উত্তরঃ (খ) বস্ত্র বয়ন

৪১। শুষ্ক অঞ্চলে যে বহির্জাত শক্তির প্রাধান্য থাকে তা হল –

(ক) নদী
(খ) বায়ু
(গ) হিমবাহ
(ঘ) কোনটিই নয়

উত্তরঃ (ক) নদী  

৪২। নায়াগ্রা জলপ্রপাত সৃষ্টি হয়েছে –

(ক) আমাজন
(খ) মিসিসিপি
(গ) কলোরাডো
(ঘ) সেন্ট লরেন্স নদীতে

উত্তরঃ (ঘ) সেন্ট লরেন্স নদীতে  

৪৩। হিমসিঁড়িতে সৃষ্ট হ্রদকে বলে –

(ক) করি হ্রদ
(খ) প্যাটার্নস্টার হ্রদ
(গ) ফিয়র্ড হ্রদ
(ঘ) টার্ন হ্রদ

উত্তরঃ (খ) প্যাটার্নস্টার হ্রদ  

৪৪।  মরু অঞ্চলে গড়ে ওঠা লবনাক্ত জলের হ্রদগুলিকে বলে –

(ক) কাতারা
(খ) ধান্দ
(গ) প্লায়া
(ঘ) মরুদ্যান

উত্তরঃ (গ) প্লায়া

৪৫।  মালভূমি থেকে উৎপন্ন একটি নদী –

(ক) গঙ্গা
(খ) ব্রহ্মপুত্র
(গ) বিতক্ত
(ঘ) দামোদর

উত্তরঃ (ঘ) দামোদর  

৪৬। আয়তনের বিচারে ভারতের বৃহত্তম অঙ্গরাজ্যটি হল –

(ক) পশ্চিমবঙ্গ
(খ) অন্ধ্রপ্রদেশ
(গ) বিহার
(ঘ) রাজস্থান

উত্তরঃ (ঘ) রাজস্থান  

৪৭। ধৌত প্রক্রিয়া দেখা যায় –

(ক) পলি
(খ) ল্যাটেরাইট
(গ) রেগুর
(ঘ) পডসল মাটিতে

উত্তরঃ (খ) ল্যাটেরাইট  

৪৮। ভারতের বৃহত্তম উপগ্রহ –

(ক) চিল্কা
(খ) কোলেরু
(গ) ভেম্বনাদ
(ঘ) পুলিকট

উত্তরঃ (ক) চিল্কা  

৪৯। উত্তর ও দক্ষিণ ভারতের জলবিভাজিকা রূপে গণ্য করা হয় –

(ক) আরাবল্লী
(খ) পশ্চিমঘাট
(গ) বিন্ধ্য
(ঘ) সাতপুরা

উত্তরঃ (গ) বিন্ধ্য  

৫০। আম্রবৃষ্টি পরিলক্ষিত হয় –

(ক) উত্তর ভারতে
(খ) পূর্ব ভারতে
(গ) দক্ষিণ ভারতে
(ঘ) পশ্চিম ভারতে

উত্তরঃ (গ) দক্ষিণ ভারতে ।

Share

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *